মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
পাটেশ্বরীর ২য় প্রাচীন সোনা ব্যাপারীর মসজিদ। বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে কুড়িগ্রামে এসে ভুরুঙ্গামারী গামী লোকাল বাসে মাত্র ৫০ টাকা ভাড়ায় ভুরুঙ্গামারীতে নেমে মাত্র ২০ টাকা রিক্সা ভাড়ায় এ মসজিদ টি দেখে যেতে পারেন। থাকার জন্য ভুরুঙ্গামারী, নাগেশ্বরী ও কুড়িগ্রাম সদরে ভালমানের নিরাপত্তামুলক ব্যবস্থা সহ অনেক আবাসিক হোটেল আছে । এছাড়া আপনি ডাকবাংলোতেও রাত্রি যাপন করতে পারেন।
মীর জুমলার প্রাচীন মসজিদ বাংলাদেশের যেকোন প্রান্ত হতে কুড়িগ্রাম এসে ভুরুঙ্গামারী গামী লোকাল বাসে মাত্র ৫০ টাকা ভাড়ায় ভুরুঙ্গামারীতে নেমে মাত্র ২০ টাকায় পাটেশ্বরীর প্রাচীন মসজিদ দেখে যেতে পারেন। আর থাকার জন্য ভুরুঙ্গামারীর একমাত্র জেরিন আবাসিক হোটেল অথবা ডাকবাংলোয় রাত্রি যাপন করতে পারবেন। কোন ভয় নেই আপনারা মীরজুমলার মসজিদ দেখে অনেক ইতিহাস জানতে পারবেন।
সোনাহাট ব্রীজ বাংলাদেশের যেকোন প্রান্ত থেকে কুড়িগ্রাম এসে ভুরুঙ্গামারী গামী লোকাল বাসে মাত্র ৫০ টাকা ভাড়ায় ভুরুঙ্গামারীতে নামতে হবে। পরে মাদার গঞ্জ গামী লোকাল বাসে মাত্র ৫ টাকা অথবা ১৫ টাকায় অটোরিক্সা যোগে অথবা ২০ টাকায় রিক্সায় সোনাহাট ব্রীজে পৌছাতে পারবেন।
সোনাহাট স্থলবন্দর বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে কুড়িগ্রামে এসে অথবা ঢাকা টু ভুরুঙ্গামারী গামী ডে ও নাইট কোচে ভুরুঙ্গামারীতে নেমে মাত্র ২০ টাকা অটোরিক্সা ভাড়ায় সোনাহাট স্থল বন্দর যেতে পারেন। থাকার জন্য ভুরুঙ্গামারী, নাগেশ্বরী ও কুড়িগ্রাম সদরে ভালমানের নিরাপত্তামুলক ব্যবস্থা সহ অনেক আবাসিক হোটেল আছে । এছাড়া আপনি ডাকবাংলোতেও রাত্রি যাপন করতে পারেন।